এক মাসের মধ্যে বিভিন্ন চাকরি পাবেন ১৫ হাজার

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: ২৭ জানুয়ারি ২০১৭, শুক্রবার: গত নভেম্বরে মেধাতালিকা প্রকাশের পর কথা ছিল এক মাসের মধ্যে বিভিন্ন চাকরি পাবেন ১৫ হাজার নির্বাচিত প্রার্থী। চাকরি পেয়ে দুইমাসের বেশি পার হলেও এখনো কাজে যোগ দিতে পারছেন না বেসরকারি স্কুল-কলেজের তালিকার পাঁচ হাজার প্রার্থী।
নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ এনটিআরসিএ শূন্যপদের চাহিদা যাচাই না করে জনবল নিয়োগ দেয়ায় সৃষ্টি হয়েছে এ জটিলতা। একারণে শূন্যপদ ছাড়া যেসব প্রতিষ্ঠান শিক্ষক চেয়েছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছে মাউশি।
এবারই প্রথম শিক্ষক নিয়োগে নিবন্ধন পরীক্ষার মাধ্যমে মেধাতালিকা করে কেন্দ্রীয়ভাবে বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কলেজ ও মাদ্রাসায় নিয়োগের পদ্ধতি চালু করে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ এনটিআরসিএ।
সে অনুযায়ী নিবন্ধন পরীক্ষার আগে দেশের ৩১ হাজার বেসরকারি স্কুল কলেজ মাদ্রাসা ১৫ হাজার শূন্যপদ ঘোষণা করেছিল। তবে প্রকৃত শূন্যপদ কত তা যাচাই না করেই পরীক্ষার মাধ্যমে প্রার্থীদের মেধাতালিকা করে এনটিআরসিএ।
সাতক্ষীরার জাহেনুর বেগম মেধাতালিকায় থেকেও জেলার নির্ধারিত বড়দল দারুচ্ছুন্নাহ আলিম মাদ্রাসা’য় যোগ দিতে পারেননি।
শূন্য পদ না থাকায় কাজে যোগ দিতে পারেননি বরগুনার নাজমুল হুদা এবং বরিশালের মাহমুদা আক্তার উর্মিও।
শূন্যপদের সংখ্যা যাচাই না করেই নিয়োগের তালিকা করার অভিযোগ নিয়ে কথা বলতে রাজি হননি এনটিআরসিএ চেয়ারম্যান এ এম এম আজাহার।
অন্যদিকে, অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার করে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর বলছে শূন্য পদ না থাকার পরেও তালিকা দেয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
এছাড়া অনেক প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে শূন্যপদে শিক্ষক নিয়োগ দিতে ঘুষ চাওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়েও কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে অধিদপ্তর। -তথ্যসূত্র : ইনডিপেন্ডেন্ট টিভি

Leave a Reply

%d bloggers like this: