উপযুক্ত টুথব্রাশ চিনবেন কীভাবে?

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২১ নভেম্বর: আমাদের শরীরের সবচেয়ে সংবেদনশীল অঙ্গের মধ্যে দাঁত অন্যতম। অনেকেই দাঁতের যতেœ বেশ গাফিলতি করেন। অনেকেই কম দামি টুথব্রাশ আবার অনেকেই মুখের সাথে মানানসই নয় এমন টুথব্রাশ ব্যবহার করেন। যা দাঁতের সুস্থতার জন্য একেবারেই উচিত নয়। দাঁতের অসুস্থতায় পড়লেই বোঝা যায়, দাঁতের যতœ নেয়াটা কত গুরুত্বপূর্ণ। তাই সম্পূর্ণ সুস্থ থাকা অবস্থায় আমাদের দাঁতের যতœ নেওয়া উচিত।

mother and daughter brush my teeth

নিয়মিত টুথব্রাশ দাঁত, দাঁতের মাড়ি এবং মাড়ির রোগ প্রতিরোধ করে। তবে সঠিক টুথব্রাশ ব্যবহার এবং সঠিক নিয়মে দাঁত ব্রাশ অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।
নান্দনিক দাঁত বিশেষজ্ঞ ডা. কারিশমা জারাদি বলেন, সঠিক নিয়মে সকালে ও রাতে দুইবার করে কমপক্ষে তিন মিনিট ধরে দাঁত ব্রাশ করুন। এভাবে দাঁত ব্রাশ আপনার দাঁতের সুস্থতা নিশ্চিত করবে।
ডা. কারিশমা সঠিক টুথব্রাশ চেনার কিছু উপায় বলেছেন। টুথ ব্রাশের এই টিপসগুলো আপনার দাঁতের গঠনকে সুন্দর করবে ও দাঁতের সুস্থ্যতা নিশ্চিত করবে।
– এমন টুথব্রাশ ব্যবহার করুন লোমগুলো যেন নরম হয়।
-টুথব্রাশ যেন আপনার মুখের আকার সাথে মানানসই হয়। আপনার মুখের আকার ছোট হলে ছোট এবং বড় হলে বড় টুথব্রাশ ব্যবহার করুন।
-সহজভাবে ব্যবহার করা যায় এমন টুথব্রাশ ব্যবহার করুন। সেটা ইলেকট্রিক হোক আর হস্তচালিত হোক।
-সস্তা টুথব্রাশ ব্যবহারের কিছুদিন পর লোমগুলো উঠে যায়। এটি বিরক্তির কারণ হতে পারে এবং ভালভাবে আপনার দাঁত পরিষ্কারও হবে না।
-কিছু টুথব্রাশের ত্রিকোণী আকারে ডিজাইন থাকে আর কিছুর থাকে না। আপনি যখন টুথব্রাশ পছন্দ করবেন তখন নিশ্চিত হোন কোন ধরনের টুথব্রাশ ব্যবহার সঠিক কাজে দেবে।
-ধরতে সুবিধা এমন বিভিন্ন আকারের টুথব্রাশ বাজারে পাওয়া যায়। একবারে বড় বা একেবারে ছোট টুথব্রাশ আপনার মুখ, দাঁত ও মাড়ির সব জায়গায় ঠিকভাবে নাও পৌঁছাতে পারে।
-উপযুক্ত টুথব্রাশ সংগ্রহের পর আপনার কাজ হবে সঠিক উপায়ে দাঁত ব্রাশ করা। যা আপনার মুখের স্বাস্থ্য ও মাড়ির রোগ প্রতিরোধ করবে। সূত্র: ঢাকাটাইমস

Leave a Reply

%d bloggers like this: