ইসরাইলের সাবেক প্রেসিডেন্টের জেল ধর্ষণের দায়ে

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ০৯ মে: ধর্ষণের অভিযোগে ইসরাইলের সাবেক প্রেসিডেন্ট মোশে কাতসাভকে জেলে যেতে হচ্ছে। এটাই ইসরাইলে প্রথম কোন প্রেসিডেন্টের জেলে যাওয়ার ইতিহাস।esrail
অভিযোগ আছে, তিনি যখন প্রথমে পর্যটন মন্ত্রী, পরে প্রেসিডেন্ট ছিলেন তখন নারী স্টাফদের ওপর নিয়মিত যৌন নিপীড়ন চালাতেন। এ অভিযোগে ২০০৭ সালে তিনি প্রেসিডেন্টের পদ ছাড়তে বাধ্য হন। ২০১১ সালে তার বিরুদ্ধে দুটি ধর্ষণ, যৌন নির্যাতন, অশালীন আচরণ ও বিচারে বাধা সৃষ্টির জন্য সাত বছরের জেল ঘোষণা করে আদালত। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি।
এতে বলা হয়, তিনি আগাম জামিন চেয়ে গত এপ্রিলে প্যারোল বোর্ডের কাছে আবেদন করেন। কিন্তু ওই বোর্ড তাকে জামিন দিতে অস্বীকৃতি জানায়। তারা বলে, অপকর্মের জন্য ৭০ বছর বয়সী কাতসাভের কোন অনুশোচনা নেই। তিনি কোন দুঃখ প্রকাশ করেন নি। তার অপরাধের শিকার হয়েছেন যারা তাদের প্রতি তিনি সহানুভূতিও প্রকাশ করেন নি। দেশটির আইন মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছেন, কাতসাভ নিজেকে ঘটনার শিকার বলে দাবি করেছেন। তিনি অব্যাহতভাবে তার অপরাধের জন্য অন্যদের দায়ী করেছেন।
উল্লেখ্য, ১৮ মাস বা দেড় বছর ধরে চলে কাতসাভের বিরুদ্ধে বিচার। তাতে তাকে যৌন নিপীড়ক হিসেবে তুলে ধরা হয়। তিনি ২০০০ সালে ইসরাইলের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন। এসব অভিযোগে পদত্যাগ করেন ২০০৭ সালে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*