ইলিশ উৎসব রাজধানীর বসুন্ধরায়

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: ২৮ জানুয়ারি ২০১৭, শনিবার: রাজধানীর বসুন্ধরা সিটি কনভেনশন সেন্টারের পুষ্পগুচ্ছ মিলনায়তনে চাঁদপুর জেলা ব্র্যান্ডিং ফেসটিভ্যাল ২০১৭ উদ্বোধন করা হয়েছে। শুক্রবার ‘ইলিশের বাড়ি চাঁদপুর’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহীউদ্দীন খান আলমগীর। তিনি বলেন, শুধু খেতেই সুস্বাদু নয়, অন্য মাছের চেয়ে ইলিশ মাছ দেখতেও বেশি সুন্দর। তাই দেশের গণ্ডি পেরিয়ে মাছের রাজা ইলিশকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দিতে হবে।
মহীউদ্দীন খান আলমগীর বলেন, ইলিশের উৎপাদন বাড়াতে জাটকা নিধন বন্ধ করা হয়েছে। এক সময় ইলিশের অকাল ছিল। কিন্তু বর্তমান সরকারের নানা উদ্যোগের ফলে ইলিশের উৎপাদন বেড়েছে। ইলিশের উৎপাদন বাড়ায় ঘরে ঘরে মানুষ এখন ইলিশ খেতে পারছে। বাজারে বড় বড় ইলিশ মাছ পাওয়া যাচ্ছে। আগামীতেও ইলিশের উৎপাদনের এ ধারা অব্যাহত থাকবে।
আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, বাহিরের দেশগুলোতে ইলিশ মাছকে ‘হিলশা’ বলে সম্বোধন করা হয়। কিন্তু আমরা সারা বিশ্বে মাছের রাজাকে ‘ইলিশ’ নামেই প্রচলিত করবো। এখন থেকে আর ‘হিলশা’ নয়, ‘ইলিশ’ নামেই পরিচিত করা হবে মাছের রাজা ইলিশকে।
চাঁদপুর চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি সুভাষ চন্দ্র রায়ের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, সংসদ সদস্য নূরজাহান বেগম মুক্তা, চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক মো. আব্দুস সবুর মন্ডল, দৈনিক যুগান্তরের সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, চ্যানেল আই’র শাইখ সিরাজ প্রমুখ বক্তব্য দেন। এ সময় ইলিশ মাছকে নিয়ে ৯ মিনিটের ভিডিও উপস্থাপন করেন শাইখ সিরাজ। ভিডিওতে চাঁদপুরের ইলিশের বিশ্বব্যাপী চাহিদা, জেলেদের জীবন, ইলিশ ধরার কৌশল, রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিকসহ বিভিন্ন অঙ্গনের আলোচিত ব্যক্তিদের ইলিশ মাছ নিয়ে অনুভূতি ফুটিয়ে তোলা হয়। পরে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
মেলার বিশেষ আকর্ষণ ছিল ইলিশের মুখরোচক হরেক রকমের রান্না। মেলায় আগত অতিথিদের সেসব মুখরোচক খাবার দিয়ে নৈশভোজ করানো হয়। এ সময় হলভর্তি অতিথিদের মধ্যে এক অন্যরকম উৎসবের আমেজ সৃষ্টি হয়।

Leave a Reply

%d bloggers like this: