ইন্টার্নশীপের উদ্দেশ্যে মালয়েশিয়ান শিক্ষার্থীদের চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ে আগমন

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১০ জুলাই ২০১৭, সোমবার: ইন্টার্নশীপ করার জন্য চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ে (সিভাসু) এসেছেন মালয়েশিয়ার সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিভার্সিটি মালয়েশিয়া তেরেঙ্গানো’র (ইউএমটি) ছাত্রছাত্রীরা। আজ ১০ জুলাই দুপুরে মালয়েশিয়ান শিক্ষার্থীরা সিভাসু ক্যাম্পাসে পৌছালে তাদেরকে অভ্যর্থনা জানানো হয়।
আগামী ১০ আগস্ট পর্যন্ত তারা ক্যাম্পাসে অবস্থান করে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের তত্ত্বাবধানে ইন্টার্নশীপ কার্যক্রম সম্পন্ন করবেন। একজন শিক্ষকের তত্ত্বাবধানে ইউএমটি’র ১০ জন শিক্ষার্থী সিভাসুতে ইন্টার্নশীপ করবেন। এ সময় তারা চট্টগ্রাম, কক্সবাজার ও রাঙ্গামাটিতে মাৎস্য গবেষণা কার্যক্রম পরিদর্শন ও অভিজ্ঞতা বিনিময় করবেন।
তাদের আগমন ও ইন্টার্নশীপ শুরু উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের কনফারেন্স রুমে বিকাল ৪ টায় এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. গৌতম বুদ্ধ দাশ। সভাপতিত্ব করেন ফিশারিজ অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. এম. নুরুল আবছার খান। এসময় ফুড সায়েন্স এ- টেকনোলজি অনুষদের ডিন প্রফেসর ডা. রায়হান ফারুক, ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের ডিন প্রফেসর এম. এ. হালিম, বহিরাঙ্গন কার্যক্রম পরিচালক প্রফেসর ড. এ. কে. এম. সাইফুদ্দীন, ইন্টার্নশীপ কো-অর্ডিনেটর ড. শেখ আহমাদ আল-নাহিদ উপস্থিত ছিলেন।
শিক্ষা ও গবেষণা বিনিময়ের লক্ষ্যে গত ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৬ তারিখে স্বাক্ষরিত সমঝোতা চুক্তি (এমওইউ) অনুযায়ী এ বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিশারিজ অনুষদ ও ফুড সায়েন্স এ- টেকনোলজি অনুষদের শিক্ষার্থীরা বিনা খরচে মালয়েশিয়ায় এক মাসের ইন্টার্নশীপ করার সুযোগ পাচ্ছে। একই ভাবে মালয়েশিয়ান শিক্ষার্থীরা সিভাসুতে ইন্টার্নশীপ করার সুযোগ পাবেন।
উল্লেখ্য, গত ৬ নভেম্বর হতে ৫ ডিসেম্বর ২০১৬ পর্যন্ত ফিশারিজ অনুষদের ১ম ব্যাচের সকল ছাত্রছাত্রী (৩৫ জন) ইউএমটি’তে অবস্থান করে ইন্টার্নশীপ সম্পন্ন করেছেন। এছাড়াও গত ১ জানুয়ারি থেকে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত ফুড সাইন্স এ- টেকনোলজি অনুষদের ছাত্রছাত্রীরা মালয়েশিয়া ইন্টার্নশীপ সম্পন্ন করেন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: