ইনজুরির কারণে আইপিএলে ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে মাঠে নামতে পারেনি মুস্তাফিজ

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২৮ মে: ইনজুরির কারণে আইপিএলে ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে মাঠে নামতে পারেনি মুস্তাফিজুর রহমান। শুক্রবার দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ম্যাচে তার দল সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ মুখোমুখি হয় গুজরাট লায়ন্সের। Mustafizur-rahman-1যদিও মুস্তাফিজকে ছাড়া তার দল ৪ উইকেটের জয় পেয়েছে। তারপরও ফিজের সতীর্থ ভুবনেশ্বর কুমার মনে করছেন এমন ম্যাচের আগে মুস্তাফিজকে হারানো দলের জন্য মোটেও কাম্য ছিল না। তাকে ছাড়া খেলা কঠিনই।
ফিজের পরিবর্তে ওই ম্যাচে এবারের আসরে প্রথমবারের মতো মাঠে নামার সুযোগ পান নিউজিল্যান্ডের তরুণ বোলার ট্রেন্ট বোল্ট। এদিন তিনি ৪ ওভারে ৩৯ রান খরচে ১টি উইকেট নেন। পাশাপাশি দলের প্রথম উইকেটের ক্যাচটি তিনিই নেন এবং ১টি রান আউটের কৃতিত্বও আছে তার ঝুলিতে। তিনি যে খুব একটা খারাপ করেছেন তা বলা যাবে না।
তবে শেষ দুই ওভারে বোল্ট যা একটু বেশি খরচ করে ফেলেছেন। এটিকে ম্যাচেরই একটি অংশ হিসেবে দেখছেন ভুবনেশ্বর। প্রথম দুই ওভারে ১৩ রান দিলেও তৃতীয় ওভারে ১১ এবং চতুর্থ ওভারে ১৫ রান খরচ করেন।
তবে ওইদিনের ম্যাচে মুস্তাফিজ না থাকাতে অনেক সিদ্ধান্তই পরিবর্তন করা হয়েছে। যেমন হায়দ্রাবাদের অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার কলকাতার ম্যাচের পরে জানান প্রথমে ব্যাট করলে বড় সংগ্রহ ধরে রাখতে চান। কিন্তু টসে জিতেও সিদ্ধান্ত বদলে প্রথমে ফিল্ডিং নেন তারা।Mustafizur-Rahman-2
এ বিষয়ে ভুবনেশ্বর বলেন, ‘আমাদের টিম মিটিংয়ে প্রথমে ব্যাটিংয়ের কথাই বলা হয়েছিল। তবে শেষ মুহূর্তে আমাদের পরিকল্পনায় কিছুটা পরিবর্তন আনা হয়। আমরা প্রথমে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেই।’
এর কারণ হিসেবে ভুবনেশ্বর জানান, দলে আশিষ নেহরার মতো অভিজ্ঞ বোলারের অনুপস্থিতি। এ ছাড়াও মুস্তাফিজের মতো বোলারও মাঠে নামতে পারবেন না। অন্যদিকে গুজরাটের ব্যাটিং লাইন আপ খুবই শক্তিশালী ছিল। অ্যারন ফিঞ্চ, সুরেশ রায়না, ব্র্যান্ডন মাককালাম ও ডোয়াইন স্মিথের মতো বিশ্বসেরা ব্যাটসম্যানরা সহজেই বড় টার্গেট তাড়া করতে সক্ষম।
ভুবনেশ্বর আরও জানান, প্রথম থেকেই মুস্তাফিজ অসাধারণ বোলিং করে আসছেন। তাকে না পেয়ে আসলেই দল সমস্যায় পড়েছিল। তবে বোল্টও ভালো করেছে। যদিও শেষ দুই ওভারে কিছুটা রান বেশি খরচ করে ফেলেছে সে। এটা ম্যাচেরই একটি অংশ। কিন্তু ফিজকে হারানো দলের জন্য মোটেও ভালো খবর নয়।’
ভুবনেশ্বর অবশ্য ফাইনালে সকল সেরাদের নিয়েই খেলার আশা করছেন। কেননা ফাইনালে তাদের প্রতিপক্ষ দুরন্ত ফর্মে থাকা বিরাট কোহলির রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। কোহলি-এবি ডি ভিলিয়ার্স-গেইল যেভাবে রানের পাহাড় গড়ে তোলেন তাতে মুস্তাফিজের মতো কৃপণ বোলারের প্রয়োজন অপরিসীম।
প্রসঙ্গত, মুস্তাফিজ আইপিএলে ১৫টি ম্যাচ খেলে গড়ে ২৪ রান দিয়ে উইকেট নিয়েছেন ১৬টি। যার ইকোনমি রেট ৬.৭৩। এক্ষেত্রে তিনি টুর্নামেন্টে সবার থেকে এগিয়ে রয়েছেন। আর সর্বোচ্চ উইকেট শিকারির তালিকায় রয়েছেন ৭ নম্বরে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*