আহুত হরতাল চলাকালে চট্টগ্রাম নগরীতে জামায়াতের মিছিল

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১২ মে: বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমীর বিশ্ব ইসলামী ব্যক্তিত্ব ও ইসলামী পূনর্জাগরনের অন্যতম প্রবক্তা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশে সাবেক সফল মন্ত্রী মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীকে হত্যার প্রতিবাদে আহুত হরতাল চলাকালে চট্টগ্রাম নগরীতে অনুষ্ঠিত এক সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল নেয়াজ মাহমুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। 11সমাবেশে বক্তারা বলেন মাওলানা মতিউর রহমান নিজামী একজন ব্যক্তি নয় তিনি একজন বিশ্ব নন্দিত স্কলার, একটি দেশ ও সংগঠকের নাম। তাকে হত্যা করে সরকার নেক্কারজনক ঘটনার অবতারনা করেছে। এই হত্যাকান্ডের জন্য আওয়ামী সরকারসহ যারা জড়িত তাদেরকে বিচারের মুখামুখি করা হবে। মাওলানা নিজামীর রক্ত কখনো বৃথা যাবে না। এই রক্তের বদলা নিতে বাংলাদেশে মানুষ এদেশে ইসলামী হুকুমত প্রতিষ্ঠায় অঙ্গীকারবদ্ধ হয়েছে। বক্তারা বলেন, সারা বিশ্বে নিজামীর জানাজা প্রমাণ করে তিনি বাংলাদেশের নেতা নন বরং বিশ্ব ইসলামী আন্দোলনের একজন সিপাহ সালার।
বক্তারা আরো বলেন, আওয়ামী ফ্যাসিবাদী শক্তি প্রশাসন ও পুলিশ বাহিনী দিয়ে ক্ষমতায় ঠিকে থাকার অপচেষ্টা তৌহিদী জনতা তছনছ করে দিতে বাধ্য হবে। গতকাল প্যারেড ময়দানে জানাজার নামাজে ছাত্রলীগের হামলা, গাড়ী ভাংচুর, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভাংচুর, রাস্তা অবরোধের জবাব দেয়ার জন্য আমরা প্রস্তুত ছিলাম তারা মাঠ ছেড়ে পালিয়ে গেছে।
বক্তারা বলেন, নগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক অগ্নোস্ত্রসহ গ্রেফতারের পরও জেলা প্রশাসন দু:খজনক বলে যে বক্তব্য দিয়েছে তার জন্য জাতি কলংকিত। অস্ত্র মামলার সাজা প্রাপ্ত আসামী, অস্ত্রসহ গ্রেফতারের পরও যারা এ রনির ইমেজ ও ক্লীন লিডার বলে দাবী করে তাদের সামান্য টুকু লজ্জা থাকা দরকার।
সমাবেশে শিবির নেতা মাহমুদ বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইস বুক ও কিছু কিছু মিডিয়া রনিকে নিয়ে লজ্জাহীনভাবে যে পিরিস্তি লিখে যাচ্ছে তার জন্য তাদেরকে জবাবদিহি করতে হবে। নেতৃবৃন্দ জানাজার নামাজে হামলাকারী ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার জন্য প্রশাসনের প্রতি আহবান জানান।
সামাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নুর আহমদ, মাওলানা নুরুল ইসলাম, এম ইলিয়াছ, শিবির নেতা তাওকীর আহমদ, ফরিদুল আলম প্রমুখ। সমাবেশ শেষে মিছিল গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করেন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: