আঞ্চলিক অস্থিতিশীলতা ও সন্ত্রাসবাদ উসকানির অভিযোগে কাতারের সঙ্গে ৪ দেশের কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন

নিইজগার্ডেন ডেস্ক :০৫ জুন, সোমবার. ২০১৭,
কাতারের রাজধানী দোহার কূটনৈতিক এলাকা। আঞ্চলিক অস্থিতিশীলতা তৈরি ও সন্ত্রাসবাদ উসকে দেওয়ার অভিযোগে কাতারের সঙ্গে সব ধরনের কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করেছে চারটি দেশ। আজ সোমবার প্রথমে সৌদি আরব পরে মিসর, বাহরাইন ও সংযুক্ত আরব আমিরাত এ সিদ্ধান্তের কথা জানায়।
কূটনৈতিক সম্পর্ক ছাড়াও কাতারের সঙ্গে ভূমি, সমুদ্রসীমা ও আকাশ সীমার সব যোগাযোগ ছিন্ন করেছে সৌদি আরব। আজ সোমবার সৌদি সরকারের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়, সন্ত্রাসবাদ ও চরমপন্থী কার্যক্রম থেকে রাষ্ট্রকে রক্ষা করার জন্য এই পদক্ষেপের প্রয়োজন ছিল।র্
এদিকে সৌদি আরবের ঘনিষ্ঠ দেশ বাহরাইনের পক্ষ থেকে জানানো হয়, কাতারের সমুদ্র ও আকাশ সীমার সব যোগাযোগ বন্ধ করা হচ্ছে। একই সঙ্গে বাহরাইনে বসবাসরত কাতারের নাগরিকদের ১৪ দিনের মধ্যে দেশটি ছাড়তে বলা হয়েছে।
সংযুক্ত আরব আমিরাত দেশটির রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা এমিরেটস নিউজ এজেন্সির খবরে বলা হয়, সন্ত্রাসী, উগ্রপন্থী ও সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীগুলোকে সমর্থন ও অর্থ সহায়তার অভিযোগে এ সম্পর্কের ছেদ ঘটানো হয়েছে। কাতারের কূটনীতিকদের দেশ ত্যাগে ৪৮ ঘণ্টা সময় দেওয়া হয়েছে।
এএফপির খবরে বলা হয়, সন্ত্রাসবাদে সহযোগিতা করায় দোহার সঙ্গে সব কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্নের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন মিসরের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।
বিশ্বে সবচেয়ে বেশি তরল প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) রপ্তানিকারক দেশ হচ্ছে কাতার। সম্পর্ক ছিন্নকারী এই চারটি দেশের সঙ্গে কাতারের ব্যাপক ব্যাংকিং ও বিমান যোগাযোগ রয়েছে। রাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী কাতার এয়ার ওয়েজের উড়োজাহাজ এই চারটি দেশের সব বিমানবন্দরে ওঠানামা করে। এ ছাড়াও এশিয়া, ইউরোপ ও যুক্তরাষ্ট্রেও বেশ জনপ্রিয় এই এয়ারওয়েজ।

Leave a Reply

%d bloggers like this: