আজকের শিশুরাই বাংলাদেশকে উন্নত দেশে রূপান্তরের প্রধান শক্তি: অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ৩১ জুলাই ২০১৭, সোমবার: আজকের শিশুরাই বাংলাদেশকে উন্নত দেশে রূপান্তরের প্রধান শক্তি হিসেবে ভূমিকা পালন করবে। তিনি আরো বলেন, আগামী দিনের সকল প্রতিবন্ধকতা ও বাধা বিপত্তি অতিক্রম করে আমাদেরকে গৌরবের চূড়ান্ত পর্যায়ে নিয়ে যাবে আজকের মেধাবী প্রজন্ম। ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন, বাংলাদেশ, (আইইবি), চট্টগ্রাম কেন্দ্রের উদ্যোগে ৩০ জুলাই ২০১৭ ইংরেজী রবিবার সন্ধ্যা ৭ টায় কেন্দ্রের মিলনায়তনে পি.ই.সি, জে.এস.সি ও সমমান পরীক্ষা ২০১৬, এস.এস.সি-২০১৭, এইচ.এস.সি-২০১৬ এবং ২০১৭ ও সমমান পরীক্ষায় যে সকল প্রকৌশলী সন্তান জিপিএ-৫ অর্জন করেছেন তাদের সংবর্ধনা প্রদান এবং ঈদ পুনর্মিলনী-২০১৭ অনুষ্ঠান ও অভ্যন্তরীণ ক্রীড়া প্রতিযোগিতা-২০১৭ এর বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। প্রধান অতিথির বক্তৃতায় অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী আরো বলেন, নতুন প্রজন্মের এই কৃতি শিক্ষার্থীদের বিজ্ঞান মনস্ক এবং জাতীয় উন্নয়নে যথাযথভাবে অবদান রাখার জন্য অভিভাবকদের প্রতি ইতিবাচক ভূমিকা পালনের জন্য আহ্বান জানান। তিনি আরো বলেন, বর্তমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির এই যুগে মেধাবী শিক্ষার্থীদের সার্বিকভাবে সহায়তা করা গেলে বাংলাদেশকে উন্নত বিশ্বের সমপর্যায়ে উন্নীত করার আদৌ অসম্ভব কিছু নয়। অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী তাঁর বক্তব্যে ১৯৭১ সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর নেতৃত্বে যেভাবে পুরো জাতি ঐক্যবদ্ধ হয়ে বাঙ্গালিরা নিজেদের মাতৃভূমিকে হানাদার মুক্ত করে স্বাধীন করেছিল ঠিক সেইভাবে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নতুন প্রজন্মের মেধাবী সন্তানেরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে বাংলাদেশকে উন্নত দেশে রূপান্তর করবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। আইইবি, চট্টগ্রাম কেন্দ্রের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী সাদেক মোহাম্মদ চৌধুরী এর সভাপতিত্বে এবং কেন্দ্রের সম্মানী সম্পাদক প্রকৌশলী প্রবীর কুমার সেন এর সঞ্চালনায় কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা ও ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপচার্য অধ্যাপক ড. প্রকৌশলী মোহাম্মদ রফিকুল আলম, আইইবি’র প্রেসিডেন্ট প্রকৌশলী মো. কবির আহমেদ ভুঞা। সভায় অন্যান্যদের মাঝে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রের ভাইস-চেয়ারম্যান (একা. এন্ড এইচআরডি) প্রকৌশলী এম. এ. রশীদ ও ভাইস-চেয়ারম্যান (এডমিন. প্রফেশ. এন্ড এসডব্লিউ) প্রকৌশলী উদয় শেখর দত্ত।
বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট)’র উপচার্য অধ্যাপক ড. প্রকৌশলী মোহাম্মদ রফিকুল আলম বলেন, আজকের সংবর্ধিত মেধাবী শিক্ষার্থীদের আগামী দিনের দেশ পরিচালনায় যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে তোলার জন্য উৎসাহ ও অনুপ্রেরণা যোগানোর জন্য অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানান। চুয়েটের উপাচার্য আরো বলেন, মাদক, সন্ত্রাস ও সাম্প্রদায়িকতা মুক্ত বিজ্ঞান মনস্ক সমাজ গঠনে মেধাবী শিক্ষার্থীদের এগিয়ে আসার সুযোগ করে দেয়ার জন্য অভিভাবকদের সচেতন থাকার আহ্বান জানান।
কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা ও ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে কেন্দ্রের অভ্যন্তরীণ ক্রীড়া প্রতিযোগিতা-২০১৭ এর বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণও করা হয়।

Leave a Reply

%d bloggers like this: