আজকের প্রজন্মই নয় অনাগত প্রতিটি বাঙালির হৃদয়ে বঙ্গবন্ধু চির জাগরুক থাকবেন: মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ০৯ আগস্ট ২০১৯ ইংরেজী, শুক্রবার: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভা আজ ৯ আগস্ট শুক্রবার বিকালে নগরীর দামপাড়ার পল্টন রোডে জননেতা জহুর আহমদ চৌধুরী মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের জাতীয় শোক দিবস উদ্যাপন পরিষদ আয়োজিত এই সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মধ্য দিয়ে মুক্তিযুদ্ধের প্রতিশোধ নিতে চেয়েছিল খুনিরা। কিন্তু বঙ্গবন্ধুকে খুন করে তারা মুজিবের আদর্শকে ম্লান করতে পারেনি। যেকারণে উন্নয়ন ও অগ্রগতিতে বাংলাদেশ আজ বিশ্বের কাছে দৃষ্টান্ত হয়ে উঠছে।

এভাবেই সোনার বাংলা গড়ার দৃঢ় পদক্ষেপে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। এতে প্রধান বক্তা ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র-১ ও নগর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনি। শোক দিবস উদযাপন পরিষদের কো-চেয়ারম্যান প্রকৌশলী বিজয় কুমার চৌধুরী কিষাণের সভাপতিত্বে ও জোটের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ খোরশেদ আলমের সঞ্চালনায় এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন মহানগর আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য আলহাজ্ব শফর আলী, জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল আলম বাবু। স্বাগত বক্তব্য রাখেন সাবেক ছাত্রনেতা, সিজেকেএস কাউন্সিলর প্রকৌশলী রাশেদুর রহমান মিলন। এতে আরো বক্তব্য রাখেন জোটের চট্টগ্রাম জেলার সভাপতি অনুপ বিশ্বাস, মুক্তিযোদ্ধা পরিবারবর্গের চেয়ারম্যান জসীম উদ্দীন চৌধুরী, নগর যুবলীগ নেতা সুমন দেবনাথ, আয়োজক পরিষদের প্রধান সমন্বয়কারী ও নগর যুবলীগের সদস্য জাবেদুল আলম সুমন, সমন্বয়কারী এম এ মান্নান শিমুল, কমার্স কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সুমন চৌধুরী, মহানগর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মিথুন মল্লিক, চপই ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মো. হেলাল উদ্দিন, মহানগর ছাত্রলীগ নেতা পৌলম দেব বুবুন, অভিজিত পাণ্ডে, রবিন দে, রানা হাজারী, আ জ ম লিংকন, ইমন দত্ত, সাজ্জাদ হোসেন, মুরাদ হাসান রবিন, আরিফুল ইসলাম, আলাউদ্দিন, শফিউল আলম, শাহনেওয়াজ বাপ্পী, শহীদুল হক, ইমন হোসেন, মো. হানিফ, শরীফ, রানা, আরিফ, মিজান, সম্রাট, বাবু, রনি প্রমুখ। বক্তারা বিদেশে পালিয়ে থাকা বঙ্গবন্ধুর সাজাপ্রাপ্ত খুনীদের দেশে ফিরিয়ে এনে ফাঁসির রায় কার্যকর করার আহ্বান জানিয়ে বলেন, বঙ্গবন্ধুকে এদেশের প্রতিটি মানুষ ভালোবাসে বলেই বাংলাদেশ আজকের এই অবস্থায় উন্নীত হয়েছে। খুনিরা বঙ্গবন্ধুকে খুন করলেও বাংলাদেশের হৃদয় থেকে এই নাম কোনোদিন মুছে ফেলা যাবে না। আজকের প্রজন্মই নয় অনাগত প্রতিটি বাঙালির হৃদয়ে বঙ্গবন্ধু চির জাগরুক থাকবেন। বক্তারা আরো বলেন, জাতি হিসাবে আমরা বীরের জাতি। কিন্তু বাঙালির কপালে কলঙ্ক তিলক এঁকে দিয়েছেন পনর আগস্টের খুনিরা। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেই খুনিদের বিচার করে বাঙালি জাতিকে কলঙ্ক থেকে মুক্তি দিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*