আগ্রাবাদ জাম্বুরী মাঠের ভূমি ফেরত দাবি ইঞ্জিনিয়ার ওমর ফারুকের

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১৫ মে ২০১৭, সোমবার: চট্টগ্রাম মহানগরীর আগ্রাবাদ জাম্বুরী মাঠ ১৯৫০ থেকে ১৯৬৪ ইংরেজীতে ব্যারিষ্টার সুলতান আহাম্মদ চৌধুরী সাহেব (তৎকালীন পাকিস্তান পার্লামেন্টের স্পীকার) থাকা অবস্থায় আবুল খায়ের পন্ডিত নামের ব্যক্তিকে দান করেছেন। উল্লেখ্য যে, আবুল খায়ের পন্ডিত নামের ব্যক্তিটি মরহুম ব্যারিষ্টার সুলতান আহাম্মদ চৌধুরীর সাহেবের বিশ্বস্ত সহযোগী ছিলেন। কিন্তু বিগত-১৯৮৪ইং থেকে ১৯৮৫ইং সালে রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ ক্ষমতায় থাকা কালীন সময়ে জায়গাটির মুল মালিকের অনুসন্ধান না করে জাম্বুরী মাঠ সংস্কার করে, আশ-পার্শ্বে রাস্তা নির্মান ও শিশু হাসপাতাল স্থাপন করেন। মুল মালিক আবুল খায়ের পন্ডিত জায়গাটিতে তৎকালীন সময়ে প্রায় ৩ বছর ভাতের হোটেল করেন এবং জায়গাটি তার দখলে ছিল। মরহুম ব্যারিষ্টার সুলতান আহাম্মদ চৌধুরী সাহেব জীবিক থাকায় অবস্থায় তিনি কয়েক বার জাম্বুরী মাঠে নিজেই এসেছিলেন। জাম্বুরী মাঠ জায়গাটিতে বন-জঙ্গলে ঘেরাও ছিল। জায়গাটিতে তখন বাঘ, ভাল্লুক, বন বিড়াল, শিয়াল, বন্যা কুকুর সহ বহু প্রজাতির পশু পাখি বাস করত এবং গাছ পালায় অন্ধকার ছিল বিধায় তখনকার সময়ে কোন মানুষ ভয়ে ঐ জায়গা দিয়ে আসা-যাওয়া ছিল না। জায়গাটির মুল মালিকের সন্তান ইঞ্জিনিয়ার মোঃ ওমর ফারুক, মুঠো ফোন নং-০১৯৫২৭১৭২৮৬ বলেন আমার পিতার জায়গাটি উদ্ধারে বাংলাদেশের ভুমি মন্ত্রী ও সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গের সহযোগীতা চেয়েছেন। বর্তমান শিশু পার্কটি যদিও সরকার অনুমতি দিয়েছেন কিন্তু এর পুর্বে জায়গাটি সম্পর্কে অনুসন্ধান করা উচিত ছিল। মরহুম আবুল খায়ের পন্ডিতের সন্তানের দাবী তাদের জায়গাটি তাদেরকে ফিরিয়ে দিতে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক সহ সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: