আইপিএলে নকআউট পর্বের সময় এসে পড়েছে

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২৪ মে: অবশেষে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) নকআউট পর্বের সময় এসে পড়েছে। এ টুর্নামেন্টে অংশ নেওয়া ৮টি দল লিগ পর্বে মোট ৫৬টি ম্যাচ খেলেছে। দীর্ঘ এ পথ অতিক্রম করে প্লে অফ পর্বে আসতে পেরেছে চারটি দল গুজরাট লায়ন্স, রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু, সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ ও কলকাতা নাইট রাইডার্স। কোয়ালিফাইয়ার ১ ম্যাচে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ দুটি দল গুজরাট ও বেঙ্গালুরু মুখোমুখি হবে।game
ম্যাচটি মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৮টায় বেঙ্গালুরুর এম চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে। গুজরাট ১৮ পয়েণ্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে অবস্থান করছে। টুর্নামেন্টে শুরু থেকেই বেশ ধারাবাহিকভাবে খেলে এসেছে সুরেশ রায়নার নেতৃত্বে দলটি। এবারের আসরে গুজরাট নতুন দল হিসেবে আইপিএলে যাত্রা শুরু করেছে। কেননা ম্যাচ ফিক্সিংয়ের দায়ে গত আসরে দু’টি দল রাজস্থান রয়্যালস ও চেন্নাই সুপার কিংস দুই মৌসুমের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছে। ফলে রাজস্থানকে নতুন ভাবে সাজিয়ে গুজরাটের আত্মপ্রকাশ।
তবে দলটি নতুন হলেও এবারের আসরে বেশ সফলতারই পরিচয় দিয়েছে। টুর্নামেন্টে প্রথম ৭ ম্যাচের মধ্যে ৬টিতেই জয় পায় তারা। এরপর তিন ম্যাচে পরাজয়ের শিকার হয়। তবে পরের চার ম্যাচের মধ্যে তিনটিতেই জয় তুলে নেয় গুজরাট। অন্যদিকে বেঙ্গালুরু এবারের আসরের প্রথম দিকে ব্যর্থতার পরিচয় দেয়। তারা যে শেষ অব্দি প্লে অফে পৌঁছাতে পারবে এটা নিয়ে অনেকেরই সংশয় ছিল। প্রথম ৭ ম্যাচের মধ্যে মাত্র ২ ম্যাচে তারা জয় পায়। কিন্তু পরের ম্যাচগুলোতে দারুনভাবে ঘুরে দাঁড়ায় কোহলির নেতৃত্বে দলটি।
শেষ ৭ ম্যাচের মধ্যে ৬টিতেই জয় হাসিল করে তারা। এছাড়াও বেঙ্গালুরুর নেতৃত্বে থাকা বিরাট কোহলির পারফরম্যান্স শুরু থেকেই দুরন্ত ছিল। তিনি এবারের আসরে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক। আর ৮১ রান করতে পারলেই গড়ে ফেলবেন টি২০-র ইতিহাসে কোনো একক টুর্নামেন্টে এক হাজার রানের মাইলফলক। এবারের আসরে এ দুটি দলের মুখোমুখি দেখায় কিন্তু সফলতা-ব্যর্থতার হার সমান। প্রথম দেখায় গুজরাট জয় পেয়েছে ৬ উইকেটে। আর ফিরতি পর্বের দেখায় সেই পরাজয়ের প্রতিশোধ বেশ ভালোভাবেই তুলেছে কোহলিরা। গুজরাটের বিপক্ষে ওই ম্যাচে ১৪৪ রানের বিশাল জয় পায় বেঙ্গালুরু।
কোয়ালিফাইয়ার ১ ম্যাচটি বেশ জমজমাট লড়াইয়ের আভাসই দিচ্ছে। বেঙ্গালুরুতে কোহলি-গেইল-এবি-ওয়াটসন দুরন্ত ফর্মে রয়েছেন। কোহলি তো ব্যাট হাতে মাঠে নামলে সেখানে ঝড় উঠে যায় চার-ছক্কার। আর তাকে পূর্ণ সমর্থন দিয়ে যাচ্ছেন অন্য দুই ওপেনার গেইল ও এবি। অন্যদিকে রায়নারাও কম যান না। এদিন হাড্ডাহাড্ডি একটি লড়াই দেখা যাবে দু’দলের মধ্যে। তবে শেষ পর্যন্ত কোন দল জয়ের হাসি হাসবে, তা আগে থেকে আন্দাজ করাও এখন বেশ কঠিন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: