আইইবি, চট্টগ্রাম কেন্দ্রে এএমআইই কোর্সের ৭৮ ও ৭৯তম ব্যাচের ওরিয়েন্টেশন

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ০৫ অক্টোবর ২০১৯ ইংরেজী, শনিবার: ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন, বাংলাদেশ (আইইবি) চট্টগ্রাম কেন্দ্র কর্তৃক পরিচালিত এএমআইই (বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং সমমান) কোর্সের ৭৮ ও ৭৯তম ব্যাচের ওরিয়েন্টেশন ও উদ্বোধনী অনুষ্ঠান কেন্দ্রের সেমিনার কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। আইইবি, চট্টগ্রাম কেন্দ্রের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. প্রকৌশলী মোহাম্মদ রফিকুল আলম এর সভাপতিত্বে এবং কেন্দ্রের সম্মানী সম্পাদক প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম মানিক এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রের প্রাক্তন চেয়ারম্যান প্রকৌশলী মোহাম্মদ হারুন। পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াতের মাধ্যমে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন কেন্দ্রের ভাইস-চেয়ারম্যান (এডমিন. প্রফেশ. এন্ড এসডব্লিউ) প্রকৌশলী প্রবীর কুমার দে এবং ধন্যবাদ জানিয়ে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রের ভাইস-চেয়ারম্যান (একা. এন্ড এইচআরডি) প্রকৌশলী প্রবীর কুমার সেন, কেন্দ্রের প্রাক্তন চেয়ারম্যান প্রকৌশলী সাদেক মোহাম্মদ চৌধুরী ও এএমআইই পাঠক্রম পরিচালনা কমিটির সদস্য-সচিব প্রকৌশলী বিপ্লব দাশ প্রমুখ।


প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন, আইইবি, চট্টগ্রাম কেন্দ্র কর্তৃক অত্যন্ত স্বল্প খরচে পরিচালিত এএমআইই ডিগ্রী বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং এর সমতুল্য একটি ডিগ্রী। এইচ এস সি অর্জনকারী প্রকৌশল বিভাগে দুই বছরের অভিজ্ঞতা সম্পন্নকারী শিক্ষার্থীরা এবং ডিপ্লোমা প্রকৌশলীরা এএমআইই ডিগ্রী অর্জনের সুযোগ পায়। একাগ্রতার সাথে যথা রীতি ক্লাসে অংশগ্রহণ এবং ধৈর্যসহকারে অধ্যবসায়ের সাথে চেষ্টা করলে এ ডিগ্রী অর্জন করা অত্যন্ত সহজ বলে মন্তব্য করেন। চুয়েট ও পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের স্বনামধন্য ও অভিজ্ঞ শিক্ষকমন্তলীসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কর্মরত পেশাদার অভিজ্ঞ প্রকৌশলী দ্বারা পাঠদানকৃত এএমআইই ডিগ্রী অর্জন করে কর্মজীবনে নিষ্ঠা, আন্তরিকতা ও দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করলে প্রধান প্রকৌশলীসহ প্রতিষ্ঠান প্রধান হওয়ার সুযোগ রয়েছে বলে উল্লেখ করেন। এছাড়াও তিনি ৪/৫ বছরে পরিবার পরিজনকে সময় কম দিয়ে কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে এ ডিগ্রী অর্জন করলে মা-বাবার আশা পূর্ণ হবে, ভবিষ্যৎ জীবনমান উন্নত হবে এবং জীবনেও পরিবারে স্বয়ংসম্পূর্ণতা আসবে বলে মন্তব্য করেন।
কেন্দ্রের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. প্রকৌশলী মোহাম্মদ রফিকুল আলম সভাপতির বক্তব্যে বলেন, ইচ্ছা শক্তির মাধ্যমেই অসাধ্যকেই সাধন করা যায়। প্রতিটি অর্জন কঠিন পরিশ্রমের মাধ্যমে অর্জন করতে হয় বলে উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, এএমআইই ডিগ্রী অর্জন করলে এমএসসি, এমবিএ ডিগ্রীতে ভর্তিসহ বিসিএস এ অংশগ্রহনের সুযোগ রয়েছে । তিনি বলেন, স্বল্প খরচে ও ডিগ্রী অর্জন করে নিজেকে দক্ষ প্রকৌশলী হিসেবে গড়ে তুলে সরকার কর্তৃক ঘোষিত বাস্তবায়নাধিন ১০০টি অর্থনৈতিক জোন চালু হলে কর্মসংস্থানের কোন অভাব হবে না বলে মন্তব্য করেন। তিনি কেন্দ্রে পরিচালিত এ কোর্সে ওয়াইফাই সম্বলিত লাইব্রেরী ও ডিজিটাল প্রজেক্টরের মাধ্যমে ক্লাস পরিচালনার বিষয়ে উল্লেখ করে শিক্ষার্থীদের প্রয়োজনীয় চাহিদা পুরনে কেন্দ্র হতে সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন।
শিক্ষার্থীদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন মিসেস শারজিনা হাসান সুইটি ও মোঃ মশিউর রহমান। কেন্দ্রের পক্ষ থেকে প্রধান অতিথিকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। ওরিয়েন্টশন ও উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কেন্দ্রের প্রাক্তন চেয়ারম্যান কাউন্সিল সদস্য ও সিনিয়র সদস্য, এএমআইই পাঠক্রম পরিচালনা কমিটির সদস্য ও রিসোর্স পার্সনসহ ৭৮ ও ৭৯তম ব্যাচের শতাধিক সংখ্যক ছাত্র-ছাত্রী উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*