অর্থ পাচারের তথ্য নেই: এইচএসবিসি বাংলাদেশ

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : এইচএসবিসিকে ব্যবহার করে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে অর্থ পাচারেরbb তথ্য উঠে এসেছে। এভাবে বাংলাদেশ থেকে অর্থ পাঁচার হয়েছে, এমন নথি তাদের কাছে নেই বলে কেন্দ্রীয় ব্যাংককে জানিয়েছেন এইচএসবিসি’র কর্মকর্তারা। বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও আর্থিক গোয়েন্দা শাখার উপ-প্রধান মাহফুজুর রহমানের সঙ্গে বৈঠকে বৃহস্পতিবার এ তথ্য জানান এইচএসবিসি বাংলাদেশের প্রতিনিধিরা। প্রতিনিধি দলে চিফ অ্যান্টি মানি লন্ডারিং কমপ্ল্যায়েন্স অফিসার ইব্রাহিম সারোয়ার ও ব্যাংকটির জনসংযোগ প্রধান তালুকদার নোমান আনোয়ারসহ চার কর্মকর্তা ছিলেন। বৈঠকের পর মাহফুজুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, “সম্প্রতি বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনের সতত্যা সম্পর্কে এইচএসবিসির কর্মকর্তারা জানান, এগুলো ২০০৬ সালের আগের ঘটনা। বাংলাদেশ থেকে অর্থ পাচারের কোনো তথ্য তাদের কাছে নেই।” তিনি আরও বলেন, “আমরা সহসাই লোক পাঠাবো এইচএসবিসি ব্যাংকে। তারা এ সংক্রান্ত তথ্য যাচাই করে দেখবে।” মাহফুজুর রহমান বলেন, “এর পাশাপাশি সুইস ব্যাংকের কাছে আবারও চিঠি লেখা হবে। এ বিষয়ে জানতে, ওই টাকাগুলো কি বাংলাদেশের কারও নাকি বিদেশে অবস্থানরত বাংলাদেশিদের।” বিট্রিশ পত্রিকা দ্যা গার্ডিয়ান, ফরাসি পত্রিকা লা মঁন্দ, বিবিসি প্যানোরামা ও ওয়াশিংটন ভিত্তিক ইন্টারন্যাশনাল কনসোর্টিয়াম অব ইনভেস্টিগেটিভ জার্নালিস্টের (আইসিআইজে) সমন্বয়ে গঠিত আন্তর্জাতিক সাংবাদিক সংগঠন এইচএসবিসির তথ্য পাচারের একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এ সব প্রতিবেদনে বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে কর ফাঁকি দিয়ে এইচএসবিসি’র সুইস বেসরকারি ব্যাংকের অর্থপাচার করা হয়েছে বলে উল্লেখ রয়েছে। সূত্র : বাংলা ট্রিবিউন

Leave a Reply

%d bloggers like this: