অভিনব বিমান বিধ্বংসী অস্ত্র উত্তর কোরিয়ার হাতে!

উত্তর কোরিয়া সম্প্রতি নতুন প্রজন্মের একটি বিমান-বিধ্বংসী অস্ত্র পদ্ধতি পরীক্ষা করেছে বলে জানিয়েছে। অভিনব এ অস্ত্র পরীক্ষার সময় উপস্থিত ছিলেন দেশটির নেতা কিম জং উন। তবে অস্ত্রটি বিষয়ে বিস্তারিত জানা না যাওয়ায় এ সম্পর্কে ধোঁয়াশা রয়েই গেছে।

সফল পরীক্ষার পর অস্ত্রটির ব্যাপক উৎপাদনের নির্দেশ দিয়ে উৎপাদিত অস্ত্রগুলো সারা উত্তর কোরিয়াজুড়ে মোতায়েনের নির্দেশনা দিয়েছেন কিম, রোববার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে দেশটির রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কেসিএনএ।  

নতুন বিমান-বিধ্বংসী এই অস্ত্রটি কী ধরনের অস্ত্র এবং কখন এটি পরীক্ষা করা হয়েছে প্রতিবেদনে তার উল্লেখ নেই। কিন্তু দেশটির একাডেমি অব ন্যাশনাল ডিফেন্স সায়েন্স অস্ত্র পরীক্ষাটির আয়োজন করেছিল বলে জানিয়েছে।

জাতিসংঘের বাণিজ্য নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকা উত্তর কোরিয়ার এই সংস্থাটি ক্ষেপণাস্ত্র ও পারমাণবিক অস্ত্র উন্নয়নের কাজে নিয়োজিত বলে ধারণা করা হয়।

কেসিএনএ-র প্রতিবেদনে বলা হয়, “একাডেমি অব ন্যাশনাল ডিফেন্স সায়েন্স এর আয়োজনে নতুন ধরনের বিমান-বিধ্বংসী নিয়ন্ত্রিত অস্ত্র পদ্ধতিটির পরীক্ষা প্রত্যক্ষ করেন কিম জং উন।

তিনি বলেন, এই অস্ত্র পদ্ধতিটির কার্যকারিতা নিবিড়ভাবে যাচাই করা হয়েছে। সারা দেশে মোতায়েনের জন্য এই অস্ত্র পদ্ধতিটির ব্যাপক উৎপাদন করা উচিত যেন এর মাধ্যমে শত্রুদের আকাশ নিয়ন্ত্রণ করার, আকাশে একাধিপত্য প্রতিষ্ঠার এবং অস্ত্রের সর্বশক্তিমানতার স্বপ্ন পুরোপুরি ভেস্তে যায়।

Leave a Reply

%d bloggers like this: