অপারেশন থিয়েটারে বৃহ্ম-মানব, দেশবাসীর দোয়া কামনা

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২০ ফেব্র“য়ারী: বৃহ্ম-মানব বা ‘ট্রি-ম্যান’ হিসেবে পরিচিতি পাওয়া আবুল বাজানদারের প্রথম অস্ত্রোপচারের জন্য তাকে অপারেশন থিয়েটারে নেওয়া হয়েছে। অপারেশনের জন্য ট্রি-ম্যান আবুল সবার দোয়া চেয়ে বলেছেন, ‘সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন, আমি যেন সুস্থ হয়ে উঠি।’
শনিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বিরল রোগে আক্রান্ত আবুলকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের অপারেশন থিয়েটারে নেওয়া হয়েছে। প্রথম অস্ত্রোপচারে তার ডান হাতের দুটি আঙুল (বৃদ্ধাঙ্গুলি ও তর্জনী) থেকে গাছের মতো শিকড় কাটা হবে। আবুলের চিকিৎসায় গঠিত নয় সদস্যের কমিটি এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।tree
ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন জানান, আবুল বাজানদারের চিকিৎসায় প্রথমে ছয় সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়। পরে সদস্যসংখ্যা বাড়িয়ে নয় সদস্যের বোর্ড করা হয়েছে। এ বোর্ডের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আজ তার প্রথম অস্ত্রোপচার করা হচ্ছে।
এর আগে ডা. সামন্ত লাল সেন জানান, আবুল ‘এপিডার্মোডিসপ্লাসিয়া ভেরাসিমরফিস’ নামের একটি বিরল রোগে ভুগছেন। এ রোগটি ট্রি-ম্যান সিনড্রোম নামে পরিচিত।
বছর দশেক আগে আবুল হাঁটুর নিচের দিকে ছোট ছোট কয়েকটি কালো রঙের আঁচিল দেখতে পান। এগুলো ধীরে ধীরে তার দুই পা এবং পরে হাতে ছড়িয়ে পড়ে। হাতের আঁচিলগুলো দ্রুত বাড়তে থাকে। এখন দেখতে গাছের শুকনো বাকলের মতো মনে হয়। পাঁচ বছর ধরে আবুল কোনো কাজ করতে পারেন না। খুলনার পাইকগাছার আবুল বাজানদার (২৬) ১০ বছর ধরে হাতে-পায়ে গাছের মতো শেকড় গজানোর বিরল রোগে আক্রান্ত। তার বাবার নাম মানিক বাজানদার। মায়ের নাম আমেনা বেগম। পাইকগাছা বাসস্ট্যান্ডের কাছে তাদের বাড়ি। গত ৩০ জানুয়ারি ঢামেক হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে চিকিৎসা নিতে আসেন তিনি। আবুল এখন ঢামেকের বার্ন ইউনিটের ৫১৫ নম্বর কেবিনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*