‘অটোরিকশাচালকদের বিরুদ্ধে পুলিশের অত্যাচার বন্ধ করতে হবে’

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২১ জুলাই ২০১৭, শুক্রবার: নগরীতে চলাচলরত সিএনজিচালিত অটোরিকশায় মিটার সংক্রান্ত বানোয়াট অভিযোগ খাড়া করে ট্রাফিক পুলিশ প্রতিদিন চালকদের বিরুদ্ধে বেপরোয়া ও বেআইনি মামলাবাজি করছে। পুলিশের সীমাহীন এই জুলুম অত্যাচারে নগরীর সিএনজিচালিত অটোরিকশাচালকরা আজ পর্যুদস্ত ও ভীতসন্ত্রস্ত। বাস্তব ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে এটা বলা যায় যে, প্রচলিত আইনের বিধিবিধান প্রতিপালনের চেয়ে পুলিশের কাছে দুর্বলের বিরুদ্ধে এইরূপ মামলাবাজি একপ্রকার দৈনন্দিন ‘আনন্দ-উৎসব’ ও ‘আইনি চাঁদাবাজির’ বিষয়ে পরিণত হয়েছে। পুলিশের এই আচার আচরণ জালেম ব্রিটিশ ও পাকিস্তানি শাসকশ্রেণি এবং তাদের লেঠেল বাহিনীর গণবিরোধী নিষ্ঠুরতার কথাই স্মরণ করিয়ে দেয়! আমরা এই অন্যায়ের বিরুদ্ধে তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ জানাচ্ছি এবং এই মামলাবাজি বন্ধে দ্রুত কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নগর পুলিশের শীর্ষ মহলের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।
মিটারভিত্তিক ভাড়ায় গাড়ি চলা না চলাকে কেন্দ্র করে ইউনিয়ন সদস্য তথা চালকদের বিরুদ্ধে ট্রাফিক পুলিশের অব্যাহত মামলাবাজির একাধিক অভিযোগ সংগঠনের পক্ষ থেকে আমরা সরেজমিনে তদন্ত করে জানতে পেরেছি যে, নগরীতে নিত্যদিনের ভয়াবহ ও প্রতিকারহীন যানজটের কারণে অধিকাংশ যাত্রী মিটারভিত্তিক ভাড়ার পরিবর্তে মৌখিক চুক্তিতে ভাড়া নির্ধারণ করে অটোরিকশায় যাতায়াত করাকে অধিকতর সুবিধাজনক মনে করেন। কেননা, মিটারে ওঠা মূল ভাড়ার সাথে অস্বাভাবিক যানজটের কারণে সৃষ্ট দীর্ঘ সময়ের ‘ওয়েটিং-চার্জ’ যুক্ত হওয়ার পর যাত্রীকে চুক্তিকৃত ভাড়ার চেয়ে অনেক বেশি ভাড়া গুনতে হয়। এমতাবস্থায় মিটারভিত্তিক ভাড়ায় যাত্রী বহন করা হচ্ছে কি-না কর্তব্যরত ট্রাফিক পুলিশ তা পরীক্ষা করতে গিয়ে যাত্রীর একান্ত নিজের ইচ্ছা বা সুবিধা-অসুবিধার কথায় কর্ণপাত না করে চালককে একতরফা ও অন্যায়ভাবে দোষী সাব্যস্ত করে মামলা ও জরিমানা করে ক্ষমতার চরম অপব্যবহার করছে। কখনো কখনো পুলিশের হাতে চালকরা শারীরিক নির্যাতনেরও শিকার হন। যাত্রীর দায় চালকের ওপর চাপিয়ে এ সংক্রান্ত অন্যায় মামলা-হামলা ও জরিমানা অবিলম্বে বন্ধ করতে হবে। তা ছাড়া মানসম্মত ও টেক্সই মিটার সংযোজন এবং মিটার নষ্ট হলে দ্রুত মেরামতের ব্যবস্থা না করে চালকের বিরুদ্ধে এ সংক্রান্ত একতরফা মামলা ও জরিমানা করার নৈতিক ও আইনগত কোনো ভিত্তি নেই। তাই যাত্রীর একান্ত ইচ্ছা বা সুবিধা-অসুবিধার কথায় কর্ণপাত না করে অথবা নষ্ট মিটারের কারণে নগরীর সিএনজিচালিত অটোরিকশাচালকদের বিরুদ্ধে পুলিশের বেপরোয়া মামলাবাজি ও সকল প্রকার জুলুম অত্যাচার বন্ধ করার জোর দাবি জানাচ্ছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*